মিডিয়ার মেয়ে আর বিয়ে করব না-অপু

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। সিনেমা থেকে শুরু করে নিজের ব্যক্তি জীবন; সবকিছু নিয়েই বর্তমানে বেশ আলোচনায় রয়েছেন। আজ তৃতীয় বিয়ে করেছেন বলে নিজেই জানিয়েছেন ফেসবুকে।

তিনি তার ফেসবুক আইডি থেকে বিয়ের একটি ছবি পোস্ট করে লেখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। আজ ১৩/০৯/২১ ইং ১২.০৫ মি. আমাদের বিবাহ সম্পন্ন হলো। এর আগের সব কথা আসলেই গুজব ছিলো। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন এটাই একমাত্র চাওয়া।’

তবে খানিকটা চাপা ক্ষোভও প্রকাশ পেলো অপুর। তিনি মাহিকে বিশ্বাস করে তার মর্যাদা পাননি। অপুর ধারণা, মিডিয়ার মেয়েরা আর অন্য সব মেয়েদের মতো নয়। একটু জটিল। তিনি গণমাধ্যমে বলেন, ‘আর কখনো মিডিয়ার মেয়ে বিয়ে করবো না। বাবা-মায়ের পছন্দে বিয়ে করবো।’

তিনি এর আগে আজ ১৩ সেপ্টেম্বর সকালে জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি রাকিবকে আগে থেকেই চিনি। মাহি আমার সঙ্গে তার বন্ধু হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিল। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে আছে আমি জানি। সে আমাদের সঙ্গে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতেও গিয়েছে।’

সমালোচনা হচ্ছে রাকিবের সঙ্গে সম্পর্কের হাত ধরেই নাকি মাহির সঙ্গে আপনার বিচ্ছেদ। এটা কতটুকু সত্যি? এমন প্রশ্নের জবাবে অপু বলেন, ‘এটা মিথ্যে। আমি খুব সাধারণ মানুষ ভাই। সাধারণভাবেই জীবন-যাপন করতে চাই। আমার পরিবারের মান সম্মান অনেক বড়। যেটা হয়ে গেছে তা নিয়ে কথা বলতে মান সম্মানে আঘাত আনতে চাই না। এ ব্যাপারে আমি আর কথা বলতে আগ্রহী নই।’

তারও আগে ২০১৫ সালের ১৫ মে কাজী মো. সালাউদ্দিন ম্যারেজ রেজিস্ট্রারের মাধ্যমে শাওন নামে একজনকে বিয়ে করেন মাহি। ২০১৬ সালে অপুকে বিয়ের পর শাওনের সঙ্গে বিয়ের বিষয়টি আলোচনায় আসে। শাওনের সঙ্গে মাহির ছবিও ফাঁস হয়। তখন মাহি সাইবার ক্রাইমে মামলা করেন। তবে সেই মামলার প্রতিবেদনে শাওনের সঙ্গে মাহির বিয়ের প্রমাণ পাওয়া যায়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

Pin It on Pinterest

Share This
Scroll to Top