বাংলাদেশে চাকরি ছাড়তে বাধ্য করা হচ্ছে ব্যাংক কর্মকর্তাদের

ঢাকা: দেশে কার্যরত ছয়টি বেসরকারি ব্যাংক থেকে ১৯ মাসে ৩ হাজার ৩১৩ জন ব্যাংকার চাকরি ছেড়েছেন। ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে চলতি বছরের ৯ আগস্ট পর্যন্ত ১৯ মাস ৯দিনে বিভিন্ন সময়ে ব্যাংক থেকে এসব কর্মী চাকরি ছেড়েছেন।

এর মধ্যে ১২ জনকে ব্যাংক থেকে ছাটাই করা হয়েছে, ২০১ জনকে অপসারণ ও ৩০ জনকে বরখাস্ত করেছে ব্যাংক। ২০২০ সালের মার্চ মাসে মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রকোপ শুরু হওয়ার পর থেকে ব্যাংকাররা চাকরি ছাড়া শুরু করেছেন।

 

যা এখনও অব্যাহত রয়েছে।

দেশের ছয়টি বেসরকারি ব্যাংকে পরিচালিত বাংলাদেশ ব্যাংকের বিশেষ পরিদর্শনে উঠে এসেছে এসব তথ্য।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চাকরি ছাড়ার জন্য কর্মকর্তারা পদত্যাগের কারণ স্বেচ্ছায় উল্লেখ করলেও তাদের চাকরি ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে। শুধু তাই নয় চাকরি থেকে অব্যহতি দেওয়ার জন্য যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়নি।

 

অভিযোগ ওঠার পরে কারণ দর্শানো নোটিশ ও আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে, সরাসরি বরখাস্ত করা হয়েছে। চাকরি ছাড়ার এমন পরিস্থিতি কেন তৈরি হয়েছে বা ব্যাংকারদের সুরক্ষা দেওয়া উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

ব্যাংকগুলো কর্মকর্তাদের যাতে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করতে বাধ্য করতে না পারে তার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক। একই সঙ্গে যৌক্তিক কারণ ছাড়া ব্যাংকারদের যাতে চাকরি ছাড়তে না হয়, অপসারণ, বরখাস্ত ও ছাটাই করার বিষয়ে নির্দেশনা থাকবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দু’টি বেসরকারি ব্যাংক থেকে থেকে চাকরি ছেড়েছেন ২হাজার ৩০৯ জন।

বাকি ১ হাজার ৪ জন চাকরি ছেড়েছেন অন্য চারটি ব্যাংক থেকে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

Pin It on Pinterest

Share This
Scroll to Top