বাংলাদেশে স্কুল কলেজ খুলছে যেসব নিয়ম মেনে

ঢাকা অফিস :
দীর্ঘ ১৭ মাস বন্ধ থাকার পর নিজ দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খোলার নির্দেশ দিলেন বাংলাদেশের শিক্ষা মন্ত্রী ডক্টর দীপু মনি। সম্প্রতি ঢাকার সচিবালয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক শেষে শিক্ষা মন্ত্রী সাংবাদিকদের কাছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সকল প্রস্তুতিও পরিকল্পনার বিস্তারিত তুলে ধরেন। শিক্ষামন্ত্রী জানান আগস্টের শেষ দিকে সংক্রমণের হার কমে যাওয়ায় ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছেন। প্রাথমিকভাবে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক সহ সকল ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু করবে। তবে এ বৈঠকে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলার গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

 

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানান, সরকার প্রতিদিনের সংক্রমণ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেবে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে বিভিন্ন শ্রেণীর জন্য স্কুলের সময় এবং দিনের সংখ্যা পর্যায়ক্রমে বাড়ানো হবে। যদি সংক্রমন বেড়ে যায়, প্রয়োজন হলে আবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়া হবে।

সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে যেসব নিদর্শন মেনে চলার নির্দেশ দেওয়া হলো :

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানিয়েছেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো শ্রেণীকক্ষে পাঠদান শুরু করলেও সেখানে বেশ কিছু নিয়ম-কানুন এবং নির্দেশনা মেনে চলতে হবে:

•শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে শিক্ষা কার্যক্রম চালাতে হবে।

•স্কুলে স্যানিটাইজ করার ব্যবস্থা রাখতে হবে। স্কুলে যেতে হলে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক

•চলতি বছর এবং সামনের বছর যারা এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষা দেবে, তাদের প্রতিদিনই ক্লাস নেয়া হবে।

•প্রাথমিক স্কুলে পঞ্চম শ্রেণীর ক্লাসও চলবে প্রতিদিন।

•প্রাথমিক স্কুলে প্রথম হতে চতুর্থ শ্রেণী এবং হাইস্কুলে ষষ্ঠ হতে অষ্টম শ্রেণীর ক্লাস চলবে সপ্তাহে একদিন করে।

•স্কুলে কোন অ্যাসেম্বলি হবে না। খেলাধূলা হবে স্বল্প পরিসরে। লাইন বেঁধে ক্লাসে ঢুকতে হবে এবং বেরুতে হবে।

•শুরুতে দিনে ৪ হতে ৫ ঘণ্টা করে ক্লাস নেয়া হবে। পরে সময় আরও বাড়ানো হবে।

•বিশ্ববিদ্যালয়গুলো তাদের সিন্ডিকেটের সভা করে খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে

দ্যা নিউজ এশিয়ান

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

Pin It on Pinterest

Share This
Scroll to Top